অনুকার শব্দ - E-Learning Bengali

Bengali E-Learning
Go to content
অনুকার/ধ্বন্যাত্মক শব্দ
কোনো কিছুর স্বাভাবিক বা কাল্পনিক অনুকৃতিবিশিষ্ট শব্দের রূপকে ধ্বন্যাত্মক শব্দ বলে। এ জাতীয় ধ্বন্যাত্মক শব্দের দুইবার প্রয়োগের নাম ধ্বন্যাত্মক দ্বিরুক্তি। ধ্বন্যাত্মক দ্বিরুক্তি দ্বারা বহুত্ব, আধিক্য ইত্যাদি বোঝায়। ধ্বন্যাত্মক দ্বিরুক্ত শব্দ কয়েকটি উপায়ে গঠিত হয়। যেমন
১. মানুষের ধ্বনির অনুকার : ভেউ ভেউ – মানুষের উচ্চস্বরে কান্নার ধ্বনি। এরূপ —ট্যা ট্যা, হি হি ইত্যাদি।
২. জীবজন্তুর ধ্বনির অনুকার : ঘেউ ঘেউ (কুকুরের ধ্বনি)। এরূপ-মিউ মিউ (বিড়ালের ডাক), কুহু কুহু (কোকিলের ডাক), কা কা (কাকের ডাক) ইত্যাদি।
৩. বস্তুর ধ্বনির অনুকার : ঘচাঘচ (ধান কাটার শব্দ)। এরূপ-মড়মড় (গাছ ভেঙে পড়ার শব্দ) | ঝমঝম (বৃষ্টি পড়ার শব্দ), হু হু (বাতাস প্রবাহের শব্দ) ইত্যাদি।
৪. অনুভূতিজাত কাল্পনিক ধ্বনির অনুকার: ঝিকিমিকি (ঔজ্জ্বল্য)। এরূপ- ঠা ঠা (রোদের তীব্রতা), কুট কুট (শরীরে কামড় লাগার মতো অনুভূতি)। অনুরূপভাবে- মিন মিন, পিট পিট, ঝি ঝি ইত্যাদি।
ধ্বন্যাত্মক শব্দগুলি কতগুলি ধ্বনির মিলিত রূপ। বাংলাভাষায় ধ্বন্যাত্মক শব্দগুলির নিজস্ব কোন অর্থ নেই। কিন্তু বাক্যে ব্যবহৃত হলে এগুলির বিশেষ তাৎপর্য থাকে।
ধ্বন্যাত্মক দ্বিরুক্তি গঠন
১. একই (ধ্বন্যাত্মক) শব্দের অবিকৃত প্রয়োগ : ধক ধক, ঝন ঝন, পট পট।
২. প্রথম শব্দটির শেষে আ যোগ করে : গপাগপ, টপাটপ, পটাপট।।
৩. দ্বিতীয় শব্দটির শেষে ই যোগ করে : ধরাধরি, ঝমঝমি, ঝনঝনি।
৪. যুগ্মরীতিতে গঠিত ধ্বন্যাত্মক শব্দ: কিচির মিচির (পাখি বা বানরের শব্দ), টাপুর টুপুর (বৃষ্টি পতনের শব্দ), হাপুস হুপুস (গোগ্রাসে কিছু খাওয়ার শব্দ)।
৫. আনি-প্রত্যয় যোগেও বিশেষ্য দ্বিরুক্ত গঠিত হয় : পাখিটার ছটফটানি দেখলে কষ্ট হয়। তোমার বকবকানি আর ভালো লাগে না।
অনুকার শব্দ
শব্দের অনুকরণে বা বিকারে যে সব শব্দের সৃষ্টি হয়, তাকে অনুকার শব্দ বলে। অনুকার শব্দ ধ্বন্যাত্মক শব্দেরই রকমফের মাত্র। যেমন-
আবোল তাবোল: কিসব আবোল তাবোল বকছ, কিছুই বুঝতে পারছি না।
কাপড়-চোপড়: যা বৃষ্টি এসছে, কাপড় চোপড় সব ভিজে গেছে।
খাবার দাবার: খাবার দাবারের যা আয়োজন করেছ।
গোছগাছ: কাল সকালে বেরবো, গোছগাছ করে নাও।
জড়সড়: মেয়েটি ভয়ে জড়সড় হয়ে পরেছে।
টেনেটুনে: টেনুটুনে সে মাধ্যমিক পাস করেছে।
ফিটফাট: পুরো ফিটফাট যে কোথাও বেরবে নাকি?
মিটমাট: ঝগড়াটা মিটমাট করে নাও।
রান্নাবান্না: সকাল থেকে যে রান্না বান্না করেই যাচ্ছ, এত খাবে কে।
শেষমশ: শেষমেশ ভুল বুঝতে পারলে।
হাবাগোবা: হাবাগোবা ছেলেটাকে নিয়ে আর পারছি না।
There are no reviews yet.
0
0
0
0
0

Website Developed by:
DR. BISHWAJIT BHATTACHARJEE
Assistant Prof. & Head
Dept. of Bengali
Karimganj College, Karimganj, Assam, India, 788710

+919101232388

bishwa941984@gmail.com
Important Links:
Back to content